শনিবার থেকে শুরু হচ্ছে নারী ফুটবল দলের অনুশীলন

প্রকাশিত: অক্টোবর ৯, ২০২০

এএফসির দুটি বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে শনিবার থেকে শুরু হচ্ছে নারী ফুটবল দলের অনুশীলন। সে লক্ষ্যে করোনা টেস্টে ইতিমধ্যে সবাই নেগেটিভ এসেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। এদিকে, নতুন মেয়াদে দায়িত্ব পেয়ে দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা করতে চান বাফুফের টেকনিক্যাল ও স্ট্রাটেজিক ডিরেক্টর পল স্মলি। করোনায় দেশের ফুটবল গেছে একপ্রকার নির্বাসনে। দীর্ঘ ৭ মাসের সে নির্বাসন কাটবে নভেম্বরের অসমাপ্ত নারী ফুটবল লিগ দিয়ে। এর আগে এএফসির দুটি বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে শনিবার থেকে শুরু হচ্ছে অনুশীলন। করোনা বিরতি কাটিয়ে বাফুফে নারী ক্যাম্পে ফিরছেন। সে লক্ষ্যে করোনা পরীক্ষা করেছেন জাতীয় দল ও বয়সভিত্তিক দলের ৩৩ জন নারী ফুটবলার। সুখবর মেয়েরা সকলে করোনা মুক্ত বলে জানালেন হেড কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।

১৩ থেকে ২১ মার্চ হবে এএফসি অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়নশীপের বাছাইপর্ব। ৩ থেকে ১১ এপ্রিল হবে অনূর্ধ্ব-১৭ এর বাছাই পর্ব। এই দুই আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে আট-ঘাঁট বেধে নামবে ছোটন শিষ্যরা। বড় খবর, এ দুটি টুর্নামেন্টের আয়োজক হবার জন্য ইতোমধ্যে এএফসির বরাবর আবেদন করেছে বাফুফে। আসরের ভেন্যু চূড়ান্ত হবে ডিসেম্বরে। বাফুফের পুরনো টেকনিক্যাল ও স্ট্রাটেজিক ডিরেক্টর পল স্মলি ফিরে এসেছেন নতুন মেয়াদে। এই দফায় মেয়েদের গড়ে তুলতে চান আরও দক্ষ্য করে। স্মলি বলেন, আমার লক্ষ্য এবার একটাই সেটা হল উন্নয়ন। সেজন্য আমাদের দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা দরকার। মেয়েরা সুযোগ পেলে কি করতে পারে তা ইতোমধ্যে প্রমাণ করেছে। বাফুফের নতুন দায়িত্ব প্রাপ্তরা সহযোগিতা করলে আসন্ন ম্যাচ গুলোতে মেয়েরা অবশ্যই ভালো করবে।

এদিকে, বাফুফের ঘোষিত সময়ের মধ্যে নারী লিগ শুরু হবার বিষয়ে আশাবাদী জাতীয় নারী ফুটবল দলের অধিনায়ক সাবিনা। সিনিয়র টিমের সামনে কোনও সূচি না থাকায় আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ আয়োজনের অনুরোধ তার। এ ক্যাম্পে অংশ নিচ্ছেন জাতীয় দলের পাশাপাশি বয়স ভিত্তি নারী ফুটবলাররা।