পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি নেতাকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত: অক্টোবর ৫, ২০২০

পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। রোববার রাত ৯টা নাগাদ স্থানীয় একটি থানার কাছে দাঁড়িয়ে থাকার সময় তাকে গুলি করা হয়। তিনি উত্তর চব্বিশ পরগণার ব্যারাকপুর জেলার ‘বিজেপি স্ট্রংম্যান’ হিসেবে পরিচিত ছিলেন। জানা গেছে, রোববার রাত ৯টা নাগাদ স্থানীয় একটি থানার কাছে দাঁড়িয়ে থাকার সময় তাকে গুলি করা হয়। মোটরসাইকেলে চেপে আসা দুষ্কৃতীরা খুব কাছ থেকে মণীশকে লক্ষ্য করে কয়েকটি গুলি করে। তাকে বাঁচাতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন তার সঙ্গী গোবিন্দ। গুলিবিদ্ধ মণীশকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, টিটাগড়ের বিটি রোডের পাশে যে জায়গায় মণীশ দাঁড়িয়ে ছিলেন, সেই জায়গাটি টিটাগড় থানা এবং পৌরসভার মাঝামাঝি। স্থানীয়ভাবে এলাকাটি ‘বড়া মস্তান’ বলে পরিচিত। ঘটনার ঠিক আগেই রাস্তা দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের একটি বিক্ষোভ মিছিল যাচ্ছিল। সেই মিছিল চলে যাওয়ার পরই পিছন থেকে বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল আসে। বাইক চালক এবং সওয়ারিদের মুখ ঢাকা ছিল হেলমেট দিয়ে। খুব কাছ থেকে মোটরসাইকেল আরোহীরা মণীশকে লক্ষ্য করে গুলি করে।

ঘটনার পরই ক্ষোভে ফুঁসে উঠেছে বিজেপি কর্মীরা। রাজ্যটির ক্ষমতাসীন দল তৃণমূলের মদত রয়েছে অভিযোগ করে টিটাগড় থানা ঘেরাও করেন তারা। এ ঘটনায় তৃণমূলকে দায়ী করে বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গীয় টুইট করেছেন। তিনি বলেন, ঘটনাটি ঘটেছে টিটাগড় থানার সামনে। ওই এলাকায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। আজকের এই ঘটনায় আমি সিবিআই তদন্ত দাবি করছি। সেই সঙ্গে পুলিশের ভূমিকারও তদন্ত হওয়া প্রয়োজন। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা