আজ আন্তর্জাতিক শকুন সচেতনতা দিবস

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৫, ২০২০

আন্তর্জাতিক শকুন সচেতনতা দিবস আজ। প্রকৃতির পরিচ্ছন্নতাকর্মী হিসেবে পরিচিত প্রাণীটিকে বাঁচাতে সচেতনতা গড়ে তোলার লক্ষ্যে প্রতিবছর সেপ্টেম্বরের প্রথম শনিবার দিবসটি পালন করা হয়। প্রাণীকুলে শকুনের যে আধিপত্য, সেটি বেশ আগেই ভেঙে তছনছ হয়েছে। এখন এটি শুধু বিলুপ্তির ঝুঁকিতে থাকা প্রাণী নয়, একেবারে নিশ্চিহ্ন হওয়ার পথেই বলা যায়। মাত্র তিন দশক আগেও কমপক্ষে ১০ লাখ শকুনের বিচরণক্ষেত্র ছিল দেশের আকাশ। সেটি এখন নেমে এসেছে ২৬০-এ। ১৯৯০ থেকে ২০১২ সালের মধ্যেই প্রায় ৯৯ শতাংশ শকুন হারিয়ে গেছে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। দেশে থাকা অল্পসংখ্যক শকুন রক্ষায় নানা পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার।

প্রকৃতি সংরক্ষণবিষয়ক আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর জোট আইইউসিএনের গবেষক সীমান্ত দীপু বলেন, বাংলাদেশে এক সময় রাজ শকুনের রাজত্ব ছিল। প্রায় ৪০ বছর হলো সেটি বিলুপ্ত হয়েছে। শকুনের সংখ্যা বাড়াতে আইইউসিএন বন অধিদপ্তরের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করছে। ইতোমধ্যে দেশে দুটি নিরাপদ জোন ঘোষণা করা হয়েছে। প্রতি বছর অন্তত ১০ থেকে ১২টি শকুন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এদিকে করোনা ভাইরাস প্রেক্ষাপটে দিবসটি উপলক্ষে কোনো সভা-সেমিনারের খোঁজ পাওয়া যায়নি। তবে দেশে-বিদেশে পরিবেশবাদী সংগঠনগুলো ভার্চুয়াল সেমিনারের আয়োজন করে।