রাজাপুরে ভূমিহীন পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানি ও সম্পত্তি দখলের চেষ্টা!

প্রকাশিত: জুন ১৪, ২০২০

আবু নাঈম, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার আঙ্গারিয়া গ্রামে ভূমিহীনদের জন্য সরকারি খাস খতিয়ানের জমি বন্দোবস্ত সম্পত্তির মালিক রাহেলা খাতুনকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ উঠেছে। গত ৮ জুন সোমবার রাজাপুর থানায় ইউসুব আলী বাদী হয়ে রাহেলা বেগম, ফারুক হোসেন, রফিকুল ইসলাম, মোজাম্মেল হোসেন ও হায়াতুন নেছার বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়েরী করে। যাহার নং ৩১৪।

অভিযোগ সুত্রে জানাযায়, গত ৩০ অক্টোবর ২০১৪ইং তারিখ ৪৪ নং আঙ্গারিয়া মৌজার সরকারি খাস ০১ নং খতিয়ানের ১১৩০/১১৬১ নং দাগের ৩০ শতাংশ জমি সরকারি বন্দোবস্ত দলিল মুলে রাহেলা খাতুন ভোগ দখল করে আসতেছে। জমিতে বসত ঘর, ফলজ ও বনজ গাছপালা রোপন করিয়া দীর্ঘ ৬ বছর ধরে ভোগ করিতেছে রাহেলা খাতুন।

স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘ ৬ বছর ধরে রাহেলা খাতুন বিগত ইং ২০১২/২০১৩ সনের বন্দোবস্ত কেস নং ২৩ দলিল মূলে ঐ সম্পত্তি ভোগ দখল করে আসিতেছে। বাদী ইউসুব আলী হাওলাদার এতদিন ধরে পার্শবর্তী অন্য সম্পত্তি ভোগ দখল করে আসছিলো। কিন্তু কিছুদিন আগে তার নিজের সম্পত্তির কিছু অংশ বিক্রি করেন। পরে রাহেলা খাতুনের সম্পত্তি জোর পূর্বক দখলের চেষ্টা করে।

উভয় পক্ষের মনোনিত শালিশগণ জানায়, বন্দোবস্ত দলিল ও স্থানীয়দের বক্তাব্য অনুযায়ী এই সম্পত্তির প্রকৃত মালিক রাহেলা খাতুন। রাহেলা খাতুনের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। তবে কাগজ পত্র পর্যালোচনা করে সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহন করার আশ্বাস দেন শালিশগণ।

এদিকে রাজাপুর থানার সহকারী উপ—পরিদর্শক (এ এস আই) মো: বদিউজ্জামান বলেন, আমি উভয় পক্ষকে বিজ্ঞ আদালতের শরাণাপন্ন হওয়ার পরামার্শ দিয়েছে। তার পরেও যদি তাঁরা মনে করে সরকারী সার্ভেয়ার ও স্থানীয় শালিশ গনের মাধ্যমে মীমাংশা করে নিতে পারে। এছাড়া স্থানীয়দের মাধ্যমে আমরা জানতে পেরেছি রাহেলা খাতুনের দলিল আগে হয়েছে এবং সে এই সম্পত্তি দীর্ঘ দিন ধরে ভোগ দখল করে আসছে।

উল্লেখ্য উপজেলার মঠবাড়ী ইউনিয়নের মৃত্য শফিজ উদ্দিন হাং এর পুত্র ইউসুব আলী হাওলাদার মৃত— আব্দুর রশিদের মেয়ে রাহেলা খাতুনের দখলকৃত জমি জোর পূর্বক দখলের চেষ্টা চালিয়ে আসিতেছে এবং থানায় মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে রাহেলা বেগমের পরিবারকে দীর্ঘদিন হয়রানি করে আসতেছে।