হিলিতে কমেছে পেঁয়াজের ঝাঁজ

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৪, ২০২১

বাজারে দেশীয় পাতা পেঁয়াজের পাশাপাশি আমদানি করা পেঁয়াজের সরবরাহ বৃদ্ধি পাওয়ায় হিলি স্থলবন্দরে পাইকারি ও খুচরা বাজারে কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম। চারদিনের ব্যবধানের কেজিতে ৮ থেকে ১০ টাকা কমে প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ২৪ টাকা দরে। এদিকে বাজারে পণ্যটির দাম কমায় খুশি ক্রেতা ও নিম্ন আয়ের মানুষ।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) বিকেলে হিলিবাজার ঘুরে দেখা যায়, প্রত্যক খুচরা দোকানির কাছে রয়েছে পর্যাপ্ত আমদানি করা ভারতীয় পেয়াঁজের সরবরাহ। অন্যদিকে রয়েছে দেশীয় পাতা পেয়াঁজের সরবরাহ। চাহিদার তুলনায় আমদানি ও সরবরাহ বৃদ্ধি পাওয়ায় চারদিন আগে বিক্রি হওয়া ২৮ থেকে ৩০ টাকা কেজির পেঁয়াজ কেজিতে ৮ থেকে ১০ টাকা কমে প্রতিকেজি পেয়াঁজ বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ২৪ টাকা দরে।

হিলি বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা শফিক নামের একজন ক্রেতা জানান, কিছুদিন আগেও হিলি বাজারে পেঁয়াজের দাম ৩৫ থেকে ৪০ টাকা দরে কিনেছি। কিন্ত সম্প্রতি পেঁয়াজের দাম অনেকটাই কমে আসতে শুরু করেছে। গেল সপ্তাহের থেকে কেজি ৮ টাকা কমে পেঁয়াজ কিনতে পারায় আমি খুশি। দাম কম থাকলে আমাদের মতো সাধারণ ক্রেতাদের অনেক উপকার হয়।

হিলি বাজারের খুচরা বিক্রেতা শাকিল বলেন, বাজারে পেঁয়াজের পর্যাপ্ত সরবরাহ রয়েছে। চাহিদার তুলনায় আমদানি বেশির কারণে দামও অনেক কমে এসেছে। দাম কমলেও বাজারে পেঁয়াজের বেচা-কেনা কমে গেছে। কারণ বাজারে বর্তমানে দেশি পাতা পেঁয়াজ ওঠা শুরু করেছে।

হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন জানান, সম্প্রতি ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে নতুন নতুন পেঁয়াজ উঠতে শুরু করেছে। ফলে সে দেশের মোকামগুলোতে পেঁয়াজের সরবরাহ বৃদ্ধি পাওয়ায় হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি বৃদ্ধি পেয়েছে। চাহিদার তুলনায় আমদানি বেশির কারণেই দামটা অনেক কমে গেছে।