আর কখনো দৌড়াতে পারবেন না শোয়েব আখতার!

প্রকাশিত: নভেম্বর ২২, ২০২১

খেলোয়াড়ি জীবনে গতি তো বিখ্যাত ছিলই, আলোচনা হতো বাউন্ডারি লাইনের কাছ থেকে দৌড়ে এসে তার বল ছোঁড়াও। হাঁটুর সমস্যার কারণে ‘রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস’ খ্যাত সাবেক পাকিস্তানি ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতারের সেই বিখ্যাত দৌড়ই কিনা থেমে যাচ্ছে এবার!

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে বিষয়টা জানালেন তিনি। লিখলেন, ‘আমার দৌড়ে বেড়ানোর দিনগুলো শেষ। হাঁটু রিপ্লেসমেন্টের জন্য অস্ট্রেলিয়ায় যেতে হচ্ছে আমাকে।’ বিষয়টি জানানোর সঙ্গে সঙ্গে নিজের একটা ছবিও জুড়ে দেন শোয়েব।

সেই পোস্টের মিনিট না যেতেই সারা দুনিয়া থেকে তার অগুণতি ভক্ত-সমর্থক শুভকামনা জানাতে থাকেন তাকে। শিগগির সেরে ওঠার কামনাও ছিল তাতে। একজন ভক্ত লিখেছেন, ‘এই হাঁটুগুলোই অজস্র বিস্ময়ের জন্ম দিয়েছে। আল্লাহ আপনাকে দ্রুত সুস্থতা দান করুক।’

‘খবরটা সত্যিই অনেক দুঃখের। তবে আপনার দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি বস!’, আরেকজন ভক্ত এসে লিখলেন সেখানে। এটাই শেষ নয়। শোয়েবের এমন খবরে দুঃখ ছেয়ে গেছে তার ভক্তসমাজে। কান্নার ইমোজি জুড়ে দিয়ে তেমনই এক শোকাহত ভক্ত লিখেছেন, ‘তোমার জন্য দুঃখ হচ্ছে চ্যাম্প। তোমার টোটাল নি রিপ্লেসমেন্ট সার্জারির জন্য শুভকামনা।’

উল্লেখ্য, ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে দ্রুতগতির বলটি এসেছিল তারই হাত থেকে। ২০০২ সালে লাহোরে নিউজিল্যান্ডের ক্রেইগ ম্যাকমিলানের বিপক্ষে ১৬১.৩ কিলোমিটার গতিতে বল করে ইতিহাস গড়েন তিনি। বনে যান ইতিহাসের প্রথম বোলার হিসেবে ১০০ মাইল গতিতে বল করার মাইলফলক।

এরপরের বছরই আবার সে কীর্তির পুনরাবৃত্তি ঘটান তিনি। ২০০৩ বিশ্বকাপে তার রেকর্ডটা আসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। ক্রিকেট ইতিহাসের দ্রুতগতির সব বোলারের তালিকায় তাই তার নামটা আসে শুরুর দিকেই।