সাবেক স্ত্রীর টাকা তুলে নেয়া মামলায় উপ-কর কমিশনারের বিচার শুরু

প্রকাশিত: অক্টোবর ১১, ২০২১

সাবেক স্ত্রীর দুইটি এফডিআর থেকে ৯ লাখ টাকা জালিয়াতির মাধ্যমে তুলে নেয়ার অভিযোগের মামলায় স্বামী উপ-কর কমিশনার শুহান সাঈদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেছেন আদালত। এর মধ্য দিয়ে আসামির বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু হলো।

সোমবার (১১ অক্টোবর) ঢাকার অ্যাডিশনাল চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান নুরের আদালত আসামির অব্যাহতির আবেদন নাকচ করে চার্জ গঠনের আদেশ দেন। একই সঙ্গে আদালত আগামী ৯ ডিসেম্বর সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য করেন। আদালত সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

শুনানিকালে আদালতে উপস্থিত ছিলেন শুহান সাঈদ। তিনি সাবেক যুগ্ম সচিব যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা এসএম আবদুল ওয়াহাবের ছেলে।

জানা যায়, ২০১৮ সালের ১৮ মে রাজধানীর বনানী থানায় মামলাটি করেন খুলনা জেলার পাইকগাছা থানার রহিমপুর গ্রামের মেয়েজ্জদ্দীন আহমেদের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস মিতু।

মামলায় তিনি অভিযোগ করেন, ২০১৮ সালের ৪ অক্টোবর শুহান সাঈদের সাথে তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। তাদের দাম্পত্য জীবন চলমান থাকাকালে বাদী নিজের সঞ্চিত অর্থে ২০১৭ সালের ৮ অক্টোবর এন আর বি গ্লোবাল ব্যাংক মহাখালী শাখায় চার লক্ষ এবং পাঁচ লক্ষ টাকার দুটি এফডিআর হিসাব খুলেন। এফডিআর দুটি খোলার পর বাদীর ব্যক্তিগত ব্যাংক এক্যাউন্টের চেক বই এবং এফডিআরের যাবতীয় কাগজপত্র তৎকালীন স্বামী আসামী শুহান সাঈদ নিকট রাখেন। বিবাহ বিচ্ছেদের পর বাদী সকল মালামাল, কাগজপত্রাদি, ব্যাংক হিসাবসহ সকল ডকুমেন্টস তার কাছে ফেরত চান। শুহান সাঈদ কৌশলে এফডিআর দুটি এবং ব্যাংক হিসাবের চেক বই ফেরত না দিয়ে অসৎ উদ্দেশ্যে রেখে দেন। পরবর্তীতে বাদী ব্যাংকে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন ২০১৮ সালের ২২ এপ্রিল এফডিআর দুটি আসামি শুহান বাদীর স্বাক্ষর জাল করে তুলে নিয়েছেন।

মামলাটি দায়ের হওয়ার পর আসামি ২০১৯ সালের ২১ মে হাইকোর্ট থেকে ৪ সপ্তাহের জামিন পান। এরপর একই বছর ১৮ জুন সিএমএম আদালতে আত্মসমর্পণ করে ফের জামিন নেন তিনি।

মামলাটি তদন্তের পর চলতি বছর ৫ এপ্রিল সিআইডি পুলিশের এসআই মো: রাশেদুজ্জামান আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।