এইডসের প্রতিষেধক ভ্যাকসিন বানাতে গিয়েই করোনার উৎপত্তি- দাবি নোবেলবিজয়ী বিজ্ঞানীর

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৯, ২০২০

ফরাসি বিজ্ঞানী লিচ মোতানিয়ার কোভিড–১৯ এর উৎপত্তি নিয়ে এক বিস্ময়কর দাবি করলেন। নোবেল পুরস্কার প্রাপক বিজ্ঞানী একটি সংবাদ চ্যানেল কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানান, SARS-CoV-2 বা কোভিড–১৯ ভাইরাসটি এইডস–এর প্রতিষেধক তৈরি করতে গিয়ে উৎপন্ন হয়েছে। উল্লেখ্য

২০০৮ সালে আর এক বিজ্ঞানী ফসয়েস বারে সিনুসি’র সঙ্গে এইডস ভাইরাসটি আবিষ্কার করার জন্য লিচ মোতানিয়ার নোবেল পুরস্কার পান।

ফরাসি চ্যানেল সিনিউজ কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মোতানিয়ার বলেন, করোনাভাইরাস জেনোমের মধ্যে এইডস–এর ভাইরাস রয়েছে এমনকি তার মধ্যে ম্যালেরিয়ার জীবাণু থাকাটা অতি মাত্রায় সম্ভব।

তিনি আরও বলেন, এই শতকের প্রথম দশক থেকে উহানের ল্যাবরেটরি করোনাভাইরাস নিয়ে কাজ করছে এবং এই বিষয়ে তারা যথেষ্ট দক্ষতাও অর্জন করেছে। যদিও অধ্যাপক মোতানিয়ারের এই বক্তব্যের জন্য অন্যান্য বিজ্ঞানী সহ তাঁর সহকর্মীদের একাংশ ওনাকে ব্যঙ্গবিদ্রুপ করেছেন।

কোভিড–১৯ ভাইরাস ল্যাবরেটরিতে তৈরি হয়েছে এই ধরনের একটি মতামত প্রথম থেকেই চালু ছিল।

সম্প্রতি ফক্স নিউজের একটি রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে বাদুড়ের মধ্যে স্বাভাবিক ভাবে থাকা করোনাভাইরাস নিয়ে কাজ করতে গিয়ে দুর্ঘটনাবশত উহানের ল্যাবরেটরি থেকে ভাইরাসটি বাইরে বেরিয়ে পড়ে। তবে সেই রিপোর্টে চীনের জৈব অস্ত্র তৈরি করার জল্পনাটি ভ্রান্ত বলে মন্তব্য করা হয়।

সেই রিপোর্টের ওপর ভিত্তি করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের জানান, জাতীয় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আধিকারিরা ও দেশের গোয়েন্দা সংস্থা করোনাভাইরাসের উৎপত্তি বিষয়ে তদন্ত করে দেখছেন। আদৌ ভাইরাসটি বাজার থেকে ছড়িয়েছে না ল্যাবরেটরি থেকে।

শনিবার এই প্রসঙ্গে ট্রাম্প সরাসরি হুমকির সুরে বলেন, যে যদি প্রমাণিত হয় উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে চীন এই ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়া প্রতিরোধ করেনি তাহলে তার মূল্য চীনকে চোকাতে হবে। যদিও উহান ইনস্টিউট অব ভাইরোলজি’র পক্ষ থেকে গোটা বিষয়টিকেই অস্বীকার করে এই প্রচার আসলে চীনের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক চক্রান্ত বলে মন্তব্য করা হয়েছে।

Source: TBT