মডেল বানানোর কথা বলে যৌনপল্লীতে এনে বিক্রি করতেন তিনি

প্রকাশিত: জুলাই ২৮, ২০২১

ফরিদপুরে মানবপাচার চক্রের এক সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৮ ফরিদপুর ক্যাম্পের একটি দল। তার নাম মো. আদল কাজী (৫০)। তিনি ফরিদপুর সদরের পূর্ব গঙ্গাবর্দি এলাকার বাসিন্দা।

গতকাল মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দিবাগত রাতে শহরের গোয়ালচামট মহল্লার রথখোলা যৌনপল্লীতে অভিযান চালিয়ে ওই ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করা হয়।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব-৮ জানায়, ফরিদপুর ক্যাম্প গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে দীর্ঘদিন ধরে একজন মানবপাচারকারী বিভিন্ন জেলা থেকে সহজ-সরল মেয়েদের মোটা অংকের বেতনের চাকরি দেওয়াসহ টিকটক ভিডিও মডেল বানানোর প্রলোভন দেখিয়ে ফরিদপুর যৌনপল্লীসহ বিভিন্নস্থানে বিক্রি করে আসছে।

এ বিষয়ে ফরিদপুর র‌্যাব ক্যাম্প গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ ও ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য গভীর অনুসন্ধান করে ঘটনার সত্যতা পায়।

র‌্যাব-৮ ফরিদপুর ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ আবদুর রহমান জানান, মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দিবাগত রাতে শহরের রথখোলাস্থ যৌনপল্লীতে অভিযান চালিয়ে মো. আদল কাজীকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে একটি মুঠোফোন এবং নগদ ১২ হাজার পাঁচশত টাকা জব্দ করা হয়।

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এ জলিল বলেন, এ ব্যাপারে র‌্যাব বাদী হয়ে আজ বুধবার (২৮ জুলাই) সকালে ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় মানব পাচার আইনে একটি মামলা করেছে।