শয্যা আর চিকিৎসক বাড়িয়ে করোনা নিয়ন্ত্রণ করা যায় না

প্রকাশিত: জুলাই ২৬, ২০২১

হাসপাতালের শয্যা আর চিকিৎসক বাড়িয়ে করোনা নিয়ন্ত্রণ করা যায় না বলে মন্তব্য করেছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। একইসঙ্গে মাস্ক পরিধান ও সামাজিক দূরত্ব মানার আহ্বান জানান তিনি।

সোমবার (২৬ জুলাই) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠক শেষে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ মন্তব্য করেন তিনি।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘হাসপাতালের সিট বাড়িয়ে, ডাক্তার বাড়িয়ে এগুলো (করোনা) নিয়ন্ত্রণ করা যায় না। ইউরোপের দেশগুলো দেখেন, স্পেন, ডেনমার্ক, সুইডেন, নরওয়ে, জার্মানি। জার্মানি তো অসহায় হয়ে পড়েছিল। ভারতের অবস্থা দেখেন, কী হয়েছে। একমাত্র মানুষ যদি মাস্ক না পরে, দূরত্ব না মানে তাহলে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ কোনোভাবেই সম্ভব হবে না।’

তিনি বলেন, ‘মক্কা-মদিনা দেখেন, মদিনার ভেতরে ৩ ফুটের মধ্যে কাউকে আসতে দেওয়া হয় না। মক্কাতেও করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে কঠোরভাবে বিধিনিষেধ পালন করা হয়েছে। এ জন্যই সৌদি আরব করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছে।’

বিধিনিষেধ কঠোর করার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কোনো নির্দেশনা ছিল কি না, এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘কালকে (মঙ্গলবার) আমরা মিটিংয়ে বসবো, তারপর সিদ্ধান্ত। মঙ্গলবার দেড়টায় সচিবালয়ে এ মিটিং অনুষ্ঠিত হবে।’

বিধিনিষেধেও বেসরকারি অনেক অফিস খোলা আছে, এ বিষয়ে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি পাল্টা জবাবে জানতে চান, ‘কোন অফিস খোলা?’

রাস্তাঘাটে যাদের ধরা হচ্ছে তারা বলছে অফিস খোলা; একজন সাংবাদিক এমন উত্তর দিলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘আমার সঙ্গে গতকালও ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের অ্যাডিশনাল আইজির সঙ্গে কথা হয়েছে, অফিসগুলোর কিছু মেশিন চালু রাখতে হয়। ওই টেকনিক্যাল কর্মীরা যাওয়া আসা করেন। অনেক জিনিস আছে, সার্ভিসিং করতে হয়, এগুলো তারা করছেন। এগুলো আমাদের মোবাইল কোর্ট তল্লাশি করছে।’