‘বোবায় ধরা’ রোগ সারাতে মেশিন উদ্ভাবন!

প্রকাশিত: জুন ২৮, ২০২১

গ্রামবাংলায় যাকে আমরা ‘বোবায় ধরা’ বলি, সেটি সারানোর জন্য এবার নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছেন কৌতুক অভিনেতা ও ভ্রমণ বিষয়ক লেখক ডম জলি। সোমবার (২৮ জুন) বিবিসির সংবাদমাধ্যমে এই তথ্য জানা গেছে। সেখানে বলা হয়েছে, সম্প্রতি ঘুমের মধ্যে শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক রাখার একটি যন্ত্র উদ্ভাবিত হয়েছে। এটি কীভাবে কাজ করে সে সম্পর্কে ডম জলি ভিডিওতে কিছু কথা বলেছেন। তিনি এর নাম দিয়েছেন কন্টিনিওয়াস পজিটিভ এয়ারওয়ে প্রেসার (সিপিএপি) মেশিন।

বিশেষজ্ঞদের মতে, বোবায় ধরা বা স্লিপ প্যারালাইসিস কেবলই ইন্দ্রিয়ঘটিত ব্যাপার। আমাদের শরীর যখন গভীর ঘুমের এক পর্যায় থেকে আরেকটি পর্যায়ে প্রবেশ করে, তখনই এই ঘটনা ঘটতে পারে। এমন ক্ষেত্রে একেকজনের একেক রকম অনুভূতি হতে পারে। কেউ ঘরের ভেতর ভৌতিক কিছুর উপস্থিতি টের পান, কেউ দুর্গন্ধ পান, কেউ হয়তো দেখতে পান ভয়ানক কোনো প্রাণি। তবে অনেকেই মনে করেন, রাতের বেলায় ঘুমন্ত ব্যক্তিকে বোবা জ্বীনেরা আক্রমণ করে। সে কারণে সেই ব্যক্তি কোনো কথা বলতে পারেন না কিংবা শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে পারেন না। বিবিসির ভিডিওতে ডম জলি বলেন, ‘ভ্রমণের সময় আমরা প্রায়ই ঘুমিয়ে পড়ি। তখন শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক রাখতে যন্ত্রটি সহায়তা করবে।’

কৌতুক অভিনেতা ডম জেলি লেবাননের বৈরুতে ১৯৬৭ সালের ১৫ নভেম্বর জন্ম নেন। ট্রিগ্যার হ্যাপি টিভি, ফুল ব্রিটানিয়া, ওয়ার্ল্ড শাট ইওর মাউথসহ একাধিক টিভি সিরিজে অভিনয় করেছেন। কয়েক বছর ধরে অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি কন্টিনিওয়াস পজিটিভ এয়ারওয়ে প্রেসার (সিপিএপি) মেশিন তৈরির কাজ করেছেন।

ডম জলি মেশিন সম্পর্কে বলেন, ‘এটি সস্তা নয়। বহু পরিশ্রমের পর আমি এই যন্ত্র তৈরি করেছি। তাই আপনাকে একটু বেশি মূল্য দিয়েই এটি কিনতে হবে।’