চিকিৎসকের সঙ্গে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ

প্রকাশিত: জুন ৯, ২০২১

চিকিৎসক পাত্রের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে হবিগঞ্জ থেকে অপহৃত কিশোরীকে নারায়ণগঞ্জ থেকে উদ্ধার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। অপহরণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তন্নী আক্তার (১৯) নামে এক নারীকে আটক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৮ জুন) সন্ধ‌্যায় গণমাধ‌্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ‌্য জানিয়েছেন র‌্যাব-৯ এর হবিগঞ্জ ক‌্যাম্পের কমান্ডার মেজর সৌরভ মো. অসীম শাতিল।

র‌্যাব জানায়, সম্প্রতি জেলার বানিয়াচং উপজেলার ত্রিকর মহল্লার এক কিশোরীকে চিকিৎসক পাত্রের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ করে নারায়ণগঞ্জে নিয়ে যান একই উপজেলার মিয়াখানী গ্রামের ছালেক মিয়ার মেয়ে তন্নী আক্তার ও তার স্বামী সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই থানার দাইপুর গ্রামের শামীম মিয়া। স্বামী-স্ত্রী অপহৃত কিশোরীকে নারায়ণগঞ্জের একটি বাসায় নিয়ে যান।

অপহরণের অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব-৯ এর হবিগঞ্জ ক‌্যাম্পের কমান্ডার মেজর সৌরভ মো. অসীম শাতিল ও সিনিয়র এএসপি এ,কে,এম কামরুজ্জামানের নেতৃত্বে একটি টিম দুপুর পৌনে তিনটার দিকে নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানার উত্তর মাসাবোতে তন্বী আক্তারের ভাড়া বাড়িতে অভিযান চালিয়ে অপহৃতা কিশোরীকে উদ্ধার করে। সেই সঙ্গে অপহরণের অভিযোগে তন্নী আক্তারকে আটক করা হয়। এ সময় র‌্যাবের অভিযানের খবর পেয়ে তার স্বামী শামীম মিয়া পালিয়ে যান।

র‌্যাব জানিয়েছে, উদ্ধার হওয়া কিশোরী ও অপহরণকারী তন্নী আক্তারকে বানিয়াচং থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে এবং মূল অভিযুক্ত শামীম মিয়াকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।