টিকটকে অশ্লীল ভিডিও, রাজশাহীতে আটক ৯

প্রকাশিত: জুন ২, ২০২১

অশ্লীল টিকটক ভিডিও তৈরি ও বিদেশে নারী পাচার চেষ্টার অভিযোগে রাজশাহী মহানগরীতে ৯ জনকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে রাজশাহী মহানগর পুলিশের কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক তার কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে আরএমপি গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্যরা।

আটক ৯ জনের মধ্যে ৩ জন কিশোরী ও একজন কিশোর আছে। তাদের বয়স ১৪ থেকে ১৭ বছরের মধ্যে। এছাড়া আটক অন্য ৫ জন হলেন- নগরীর ছোটবনগ্রাম হাউজিং কোয়ার্টার এলাকার এসএম সিহাব ওরফে অন্তর (২৫), একই এলাকার মমিনুল ইসলাম (২৪), পুঠিয়া উপজেলার কাঁঠালবাড়িয়া এলাকার শরিফুল ইসলাম (২০), এয়ারপোর্ট থানার বিরস্তইল এলাকার ইসতিয়াক আহমেদ ওরফে রিফাত (১৯) ও পবা উপজেলার বড় ভালাম এলাকার লালন শাহ (২৪)।

সংবাদ সম্মেলনে আরএমপি কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক বলেন, টিকটকাররা দরিদ্র পরিবারের মেয়েদের প্রলোভন দেখিয়ে ভিডিও বানিয়ে ইউটিউবে ছেড়ে দিয়ে আসক্ত করছে। টিকটকারদের শক্তিশালী গ্রুপ রয়েছে যারা প্রলোভন দেখিয়ে ভিডিও বানিয়ে দেশের বাইরেও মেয়েদের পাঠানোর চেষ্টা করছে। আটক মেয়েদের যাচাই-বাছাই শেষে ছেড়ে দেয়া হবে। আর যারা যুক্ত আছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, আটকদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে রাজশাহীতে টিকটক ভিডিও বানানোর সঙ্গে প্রায় ৫০০ ছেলে-মেয়ে জড়িত রয়েছে। টিকটক তৈরিতে যেসব তরুণীদের ব্যবহার করা হচ্ছে তারা রিকশা চালকসহ সমাজের নিম্নশ্রেণির পরিবারের মেয়ে। যাদের বেশিরভাগই অষ্টম থেকে দশম শ্রেণির ছাত্রী। তাদের তালিকা তৈরির চেষ্টা চলছে। এ পথ থেকে তাদের ফিরে আসার আহ্বান জানাচ্ছি। অন্যথায় কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।