বিপাকে পড়ে জায়েদ খানের অনুরোধ

প্রকাশিত: এপ্রিল ২২, ২০২১

গত বছরের মার্চে দেশে মহামারি করোনার প্রথম ডেউ শুরু হয়। এরপরই চলচ্চিত্র শিল্পীরা বেকার হয়ে পড়েন। তখন চলচ্চিত্র শিল্পীদের পাশাপাশি স্বল্প আয়ের কলাকুশলীদের কয়েকদফা সহযোগিতা করে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি। চলতি বছরে সরকার লকডাউন ঘোষণা করেছে। আবারো কর্মহীন হয়ে পড়েছেন অনেক শিল্পী। কিন্তু এখন পর্যন্ত শিল্পীদের পাশে দাঁড়াতে পারেনি সংগঠনটি। কর্মহীন শিল্পীদের নিয়ে বিপাকে পড়েছেন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান।

রাইজিংবিডির সঙ্গে আলাপকালে জায়েদ খান বলেন, ‘গতবার সামর্থ্যবান শিল্পী ও বিত্তবানদের সহযোগিতায় বেকার পিছিয়ে পড়া শিল্পীদের সহায়তা করতে পেরেছিলাম। এবার কোনো জায়গা থেকে কোনো সহযোগিতা না পাওয়ায় কিছু শিল্পী মানবেতর জীবনযাপন করছেন। তাদের প্রত্যাশা এবারো তাদের পাশে দাঁড়াই। কিন্তু এখন পর্যন্ত কিছুই করতে পারিনি।’

সরকারি সহযোগিতার দাবি করে জায়েদ খান বলেন, ‘গত বছর লকডাউনে কাজহীন পিছিয়ে পড়া শিল্পীদের বাঁচাতে তথ্য মন্ত্রণালয়ের কথামতো আর্থিক প্রণোদনার জন্য ২৩১ জন শিল্পীর তালিকা মন্ত্রণালয়ে জমা দিলেও আজ পর্যন্ত একটি টাকাও পাইনি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে একান্ত অনুরোধ, ২৩১ জন অসহায় শিল্পীকে তালিকা অনুযায়ী প্রণোদনা দেওয়ার ব্যবস্থা করলে তারা বাঁচতে পারবে।’

জায়েদ খান সবসময় শিল্পীদের পাশে দাঁড়িয়ে চলচ্চিত্রের মানুষের প্রশংসায় সিক্ত হচ্ছেন। সম্প্রতি অভিনয় শিল্পী কবরী ও ওয়াসিমসহ অনেকে মারা গেলে তাদের তদারকি এবং দাফন পর্যন্ত নিজ হাতে করেন জায়েদ খান। এজন্য চলচ্চিত্রের সিনিয়র শিল্পী সোহেল রানা, উজ্জ্বল, রোজিনাসহ অনেকেই জায়েদ খানকে ‘করোনা বীর’ বলে আখ্যায়িত করেছেন।