কুষ্টিয়ায় বৃষ্টির জন্য নামাজ আদায়

প্রকাশিত: এপ্রিল ২১, ২০২১

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলায় অনাবৃষ্টি ও প্রচণ্ড খরা থেকে রেহাই পেতে মহান আল্লাহর কাছে রহমতের বৃষ্টির জন্য নামাজ আদায় ও বিশেষ মোনাজাত করেছেন কয়েকশ মানুষ।

বুধবার (২১ এপ্রিল) সকাল ১০টার দিকে বৃষ্টির জন্য উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের মাঠে দুই রাকাত ইসতেস্কার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। বিশেষ এ নামাজে ওই গ্রামের প্রায় দুই শতাধিক মুসল্লি অংশগ্রহণ করেন। নামাজ শেষে বৃষ্টির জন্য বিশেষ মোনাজাত করেন তারা। গত সোমবার সকালে একই জায়গায় ইসতেস্কার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

কুষ্টিয়ার মাঠ-ঘাট ফেটে চৌচির হয়ে যাচ্ছে, নদী ও খালের পানি তলানিতে ঠেকেছে বৃষ্টির অভাবে। অনেক দিন বৃষ্টি না হওয়ায় আল্লাহর উদ্দেশ্যে বিশেষ নামাজ আদায় করেছেন তারা।

বৃষ্টির জন্য ইসতেস্কার নামাজের পর মোনাজাতে তারা বারবার বলতে থাকেন, হে আল্লাহ, আপনি বৃষ্টিদান করেন। হে আল্লাহ, আপনি বৃষ্টি দেন।

কুষ্টিয়ায় বৃষ্টির জন্য নামাজ আদায়
নামাজ ও মোনাজাত পরিচালনা করেন চর জগন্নাথপুর গ্রামের জামে মসজিদের ইমাম ইদ্রিস আলী। তিনি বলেন, কুষ্টিয়ায় কয়েক মাস ধরে বৃষ্টি হয় না। তাই আমরা গত সোমবার সকালে নামাজ আদায় করে দোয়া করেছিলাম। বৃষ্টি না হওয়ায় তাপদাহে দেশের মানুষের কষ্ট হচ্ছে। এ রকম পরিস্থিতে প্রয়োজন পূরণের জন্য আল্লাহর দরবারে পানি প্রার্থনা করে দোয়া করা সুন্নত। তাই আবারও এই নামাজের আয়োজন করা হয়েছে।

মুসল্লিরা বলেন, আল্লাহ সৃষ্টির কল্যাণে আসমান থেকে বৃষ্টি বর্ষণ করেন। কোরআনের অনেক জায়গায় আসমান থেকে পানি বর্ষণের কথা উল্লেখ আছে। বৃষ্টির পানি বর্ষণের মাধ্যমে আল্লাহ মানুষের জন্য রিজিকের ফয়সালা করেন।