স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে টেলিহেলথ সার্ভিস সেবা কল সেন্টার এর শুভ উদ্বোধন।

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৮, ২০২১

মিরর ডেস্কঃ বৈশ্বিক করোনা মহামারী সংক্রমন মাত্রাতিরিক্ত হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় দ্বিতীয় ধাপে সরকার ঘোষিত লকডাউনে ঘরবন্দী রোগাক্রান্ত মানুষকে ২৪ ঘন্টা বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ সেবা প্রদানের লক্ষ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ ৪৩ জন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সমন্বয়ে আজ ১৮ এপ্রিল ২০২১ইং, রোজ রবিবার বেলা ১২ঃ০০ টায় কলাবাগান ক্রীড়া চক্র মাঠ প্রাঙ্গণে বিনামূল্যে টেলিহেলথ সার্ভিস সেবা কল সেন্টার ০৯৬১১৯৯৯৭৭৭ চালু করেছে। টেলিহেলথ সার্ভিসের মাধ্যমে দিনরাত ২৪ ঘন্টা রোগাক্রান্ত ঘরবন্দী মানুষ কে বিনামূল্যে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ সেবা এবং রোগী ও লাশ বহনের জন্য ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সেবা প্রদান করা হবে।

এ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিপ্লবী যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জননেতা কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম। তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ভয়কে জয় করে সতর্কতামূলক কর্মকান্ডের মধ্য দিয়ে করোনার ভয়াল থাবা থেকে দেশের মানুষ কে রক্ষার চেষ্টা করবো। করোনার দ্বিতীয় ঢেউকে মোকাবেলা করতে সক্ষম হব।করোনার ভয়ংকরী রুপ,অজানা শত্রুর বিরুদ্ধে জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ও পরামর্শে সকল ভয়ভীতি উপেক্ষা করে স্বাস্থ্য বিধি মেনে আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে। স্বেচ্ছাসেবক লীগ একটি মানবিক সংগঠন। ইতিমধ্যে সংগঠনের পক্ষ থেকে রোগী ও লাশ বহনের জন্য ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সেবা চালু করেছে। অ্যাম্বুলেন্সের সংখ্যা আরো বাড়ানো হবে। স্বেচ্ছাসেবক লীগের টেলিহেলথ সার্ভিসের এই মহৎ উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। এটা মানুষের কাছে বরনীয় কর্মসূচী হিসাবে প্রমানিত হবে।
বাংলাদেশের মানুষ তাদের মিথ্যাচার ও অপরাজনীতিকে ঘৃণাণরে প্রত্যাখ্যান করেছে। তারা কোন মানবিক কর্মসূচী নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়ায় না! স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার বিরোধিতা করে! লকডাউন তুলে দিলে সমালোচনা করে বিরোধিতা করে! ১৭ কোটি মানুষ এসকল অপরাজনীতি থেকে বের হয়ে আসার প্রত্যাশা করে। তাদের মিথ্যাচারের কত ভয়ংকর রুপ! এরা করোনার মত এদের রুপ পরিবর্তন করে! তাদের মিথ্যাচারের সকল রুপ পরিস্কার হতে শুরু করেছে! বিএনপি নেতাকে কারা গুম করেছে সেসব পরিস্কার হয়ে গেছে! এরা দেশ বিরোধী সাম্প্রদায়িক ধর্ম ব্যবসায়ীদের উস্কে দিয়ে ফায়দা লুটতে চায়! সময় এসেছে ঐক্যবদ্ধ থেকে রাজনৈতিক ভাবে এসকল অপশক্তিকে মোকাবেলা করতে হবে।আইনের আওতায় বিচার করতে হবে। এদের শিকড় উপড়ে ফেলতে হবে! এরাই জাতির পিতা ও জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করেছে! এদেশে তারা ধর্মভিত্তিক রাজনীতি করতে চায়! তাদের নিশ্চিহ্ন করে দিতে হবে! প্রয়োজনে যুগোপযোগী আইন প্রণয়ন করতে হবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে। এদেশের উন্নয়ন অগ্রগতি কেউ থামাতে পারবে না।
অতঃপর তিনি টেলিহেলথ সার্ভিসের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সংগ্রামী সভাপতি জননেতা নির্মল রঞ্জন গুহ। তিনি বলেন বৈশ্বিক করোনা মহামারীর শুরু থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা একটি দিনের জন্য ও বিচলিত হননি! যখন যেখানে যা করার দরকার তা করেছেন! সরকারের পাশাপাশি দলীয় নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন! স্বেচ্ছাসেবক লীগ মাঠে থেকে জনগনের পাশে থেকে প্রমান করতে সক্ষম হয়েছে রাজনীতি নিজের জন্য নয়! রাজনীতি জনগণের জন্য! মাননীয় নেত্রী আমাদের শিখিয়েছেন কিভাবে মানুষের পাশে থাকতে হয়। মাননীয় নেত্রীর মানবিক গুণাবলী থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে আমরা মানুষের পাশে থেকে কাজ করছি। ইতিমধ্যে মানবিক ভ্যানগাড়ীর মাধ্যমে কর্মহীন ঘরবন্দী অসহায় পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে! সারাদেশে আমরা মানুষের জন্য কাজ করবো। বিগত দিনের মত দূর্যোগপূর্ণ মুহুর্তে মানুষের পাশে থাকার জন্য স্বেচ্ছাসেবক লীগের সকল নেতাকর্মীর প্রতি আহবান জানান তিনি।

সঞ্চালনা করেন সংগঠনের বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক জননেতা একেএম আফজালুর রহমান বাবু। তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিটি নেতাকর্মী ভয়কে জয় করে নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে মানুষের সেবায় নিয়োজিত আছে! মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে স্বেচ্ছাসেবক লীগ যেকোন ঝুঁকি নিতে প্রস্তুত। সারাদেশে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীরা মানবিক সেবা নিয়ে মানুষের পাশে আছে এবং থাকবে।
এসময় আরো বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ সভাপতি ও কলসেন্টারের টিম লিডার জননেতা ডাঃ আসাদুজ্জামান রিন্টু, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ আলী আবরার।
আরও উপস্থিত ছিলেন সাংগঠনিক সম্পাদক অাবদুল্লাহ অাল সায়েম, অাফম মাহবুবুল রহমান, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিষয়ক সম্পাদক ওবায়দুল হক খান, প্রচার সম্পাদক রফিকুল ইসলাম বিটু, দপ্তর সম্পাদক অাজিজুল হক, গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক কেএম মনোয়ারুল ইসলাম বিপুল, উপ স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ জয় হাজরা, উপ প্রতিবন্ধি উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ উম্মে সালমা মুনমুন, কার্যনির্বাহী সদস্য ডাঃ রাজীব কুমার সাহা, ডাঃঅাব্দুস সালাম সহ সংগঠনের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।