লকডাউনের প্রথম দিনে দেয়া হলো আড়াই লাখ ‘মুভমেন্ট পাস’

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৪, ২০২১

আট দিনের সর্বাত্মক লকডাউনে চলাচল করতে পুলিশের দেয়া ‘মুভমেন্ট পাস’ সংগ্রহের ক্ষেত্রে মানুষের বিপুল সাড়া লক্ষ্য করা গেছে।

পুলিশ সদর দপ্তরের জনসংযোগ বিভাগ জানায়, বুধবার পর্যন্ত ‘মুভমেন্ট পাস’ সংগ্রহের জন্য নির্ধারিত ওয়েবসাইটে ৭ কোটি ৮১ লাখ হিট করা হয়েছে। প্রতি মুহূর্তে ২১ হাজার ৩৩৭ বার হিট করা হচ্ছে।

এছাড়া, চালু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত ৩ লাখ ১০ হাজার জন মুভমেন্ট পাসের জন্য রেজিস্ট্রেশন করেছেন। পাস ইস্যু করা হয়েছে ২ লাখ ৫০ হাজার।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার থেকে নির্ধারিত ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে লকডাউনের মধ্যে আবেদন সাপেক্ষে মুভমেন্ট পাস দেয়া শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সদর দপ্তরের জনসংযোগ বিভাগের এআইজি মো. সোহেল রানা বলেন, ‘প্রত্যেক ব্যক্তিকে দিনে তিনটার বেশি মুভমেন্ট পাস দেওয়া হবে না। সপ্তাহে প্রতি জনকে সর্বোচ্চ ১৫টি মুভমেন্ট পাস দেওয়ার চিন্তা ভাবনা রয়েছে।’

আগামীকাল ১৪ এপ্রিল থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি নিষেধাজ্ঞার মধ্যে বাড়ির বাইরে যাদের একান্তই যেতে হবে তাদের জন্য মুভমেন্ট পাসের ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ পুলিশ। তবে সাংবাদিকসহ জরুরি সার্ভিসে কর্মরতদের জন্য এই পাস লাগবে না।

যেভাবে আবেদন করা যাবে

https://movementpass.police.gov.bd/ ওয়েবসাইটে ঢুকে পাসের জন্য আবেদন করতে হবে।

শুরুতে একটি সক্রিয় মোবাইল ফোন নম্বর দিতে হবে। আবেদনকারী কোথা থেকে কোথায় যাবেন, তা জানতে চাওয়া হবে। সেই সব তথ্য ধাপে ধাপে দিতে হবে। এরপর আবেদনকারীর একটি ছবি আপলোড করে ফরমটি জমা দিতে হবে।

জমা দেওয়া ফরমে আবেদনকারী দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মুভমেন্ট পাস ইস্যু করা হবে। ওয়েবসাইট থেকেই পাসটি ডাউনলোড করা যাবে।

লকডাউনে চলাচলের সময় কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের পাস দেখাতে হবে।

মুভমেন্ট পাসের জন্য যেসব তথ্য লাগবে

আবেদনকারী কোন থানা এলাকা থেকে কোন থানা এলাকায় যাবেন তা উল্লেখ করতে হবে, আবেদনকারীর নাম, লিঙ্গ, বয়স, ভ্রমণের কারণ, পাস ব্যবহারের তারিখ ও সময়, পাসের মেয়াদ শেষের তারিখ ও সময়, পরিচয়পত্র, ছবি।

পরিচয়পত্র হিসেবে জাতীয় পরিচয়পত্র, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট, জন্মনিবন্ধন বা স্টুডেন্ট আইডি কার্ড ব্যবহার করা যাবে।

যেসব ক্ষেত্রে লাগবে মুভমেন্ট পাস

মুদি মালামাল কেনাকাটা, কাঁচাবাজার, ওষুধ কেনা, চিকিৎসা, চাকরি, কৃষিকাজ, পণ্য পরিবহন, পণ্য সরবরাহ, ত্রাণ বিতরণ, পাইকারি/খুচরা ক্রয়, পর্যটন, মৃতদেহ সৎকার, ব্যবসাসহ অন্যান্য জরুরি কারণে বাইরে যাওয়ার জন্য পাসের আবেদন করা যাবে।