বুধবার থেকে গণপরিবহনে ভাড়া বাড়ছে ৬০ শতাংশ

প্রকাশিত: মার্চ ৩০, ২০২১

আবারও করোনার সংক্রমণ বাড়তে থাকায় সরকার ১৮টি জরুরি নির্দেশনা জারি করেছে। এরমধ্যে গণপরিবহনে ৫০ শতাংশ সিট ফাঁকা রাখার কথা বলা হয়েছে। সেই নির্দেশনার আলোকে আগামী দুই সপ্তাহের জন্য গণপরিবহনের ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) সমসাময়িক বিষয় নিয়ে নিজ বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি বক্তব্য দেওয়ার সময় আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের একথা জানান।

করোনার সংক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ অন্যান্য নিয়মাবলী মেনে চলার বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি বলেন, দুই সপ্তাহের জন্য বুধবার (৩১ মার্চ) থেকেই এ নির্দেশনা কার্যকর হবে।

অন্যদিকে বিআরটিএ চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার বলেন, এ সংক্রান্ত নির্দেশনা মন্ত্রী মহোদয় দিয়েছেন। একটি প্রজ্ঞাপন জারি হয়েছে। সে আলোকে আগামীকাল (বুধবার) থেকে তা কার্যকর করা হবে। নির্দেশনা কার্যকরের লক্ষ্যে বিআরটিএ থেকে সব ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

ঢাকা সড়ক পরিবহন সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্লাহ বলেন, বুধবার থেকে বাস-মিনিবাসে নতুন ভাড়া কার্যকর হবে। বিআরটিএ’র চেয়ারম্যান বিষয়টি পরিবহন নেতাদের জানিয়েছেন।

সোমবার (২৯ মার্চ) বিআরটিএ প্রধান কার্যালয়ে সন্ধ্যা ৬টা থেকে সাড়ে ৭টা পর্যন্ত ভাড়া পুনর্নির্ধারণ সংক্রান্ত একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সে বৈঠকের পর রাত পৌনে ৮টায় সংস্থাটির চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার সাংবাদিকদের অর্ধেক যাত্রী পরিবহন করতে বাস ও মিনিবাসে শতকরা ৬০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়ার কথা জানান।

তিনি বলেছেন, বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে পরিবহন মালিকদের সঙ্গে আলোচনা এবং প্রস্তাবনার ভিত্তিতে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়কে প্রস্তাবটি পাঠানো হচ্ছে। করোনার বর্তমান পরিস্থিতির কারণে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। সেই প্রজ্ঞাপনে গণপরিবহনে যাত্রীদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে। গণপরিবহনের ধারণ ক্ষমতার ৫০ শতাংশের অধিক যাত্রী নেওয়া যাবে না মর্মে নির্দেশনা রয়েছে।

পাশাপাশি আরও একটি নির্দেশনা হচ্ছে, করোনার ঝুঁকি রয়েছে এমন এলাকায় গণপরিবহন চলাচল শিথিল বা প্রয়োজনে বন্ধ রাখতে হবে। তবে এ বিষয়টি ঠিক করবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

করোনার সংক্রমণ বাড়ায় গত বছর ৩১ মে বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছিল সরকার।