ব্রাভোর সেঞ্চুরিতে শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশ করল উইন্ডিজ

প্রকাশিত: মার্চ ১৫, ২০২১

সংক্ষিপ্ত স্কোর-

শ্রীলঙ্কা: ২৭৪/৬, ৫০ ওভার (হাসারাঙ্গা ৮০, বান্দারা ৫৫, গুনাথিলাকা ৩৬; আকিল ৩/৩৩)
উইন্ডিজ: ২৭৬/৫, ৪৮.৩ ওভার (ব্রাভো ১০২, শাই হোপ ৬৪, পোলার্ড ৫৩; লাকমাল ২/৫৬)

ফল: উইন্ডিজ ৫ উইকেটে জয়ী।

পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে গেছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল। সেখানে শুরুতে ৩ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারলেও স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে একটি ম্যাচে জয় পায় লঙ্কানরা। তবে সমান ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে অসহায় আত্মসমর্পণ সফরকারীদের। আগের দুই ম্যাচ ৮ উইকেট ও ৫ উইকেটে হারের পর সিরিজের তৃতীয় ম্যাচেও ৫ উইকেটে হার শ্রীলঙ্কার। এতে ৩ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে দাপট দেখিয়ে জয়ের পাশাপাশি শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশের স্বাদ দিল উইন্ডিজ।

৩ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ৩৭ রানে অপরাজিত থেকে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান ড্যারেন ব্রাভো। দ্বিতীয় ম্যাচে সুবিধা করতে না পারলেও তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে সেঞ্চুরি তুলে নেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ব্রাভোর শতকের সঙ্গে শাই হোপ ও অধিনায়ক কাইরন পোলার্ডের ব্যাটে ভর করে তৃতীয় ম্যাচে জয় পায় উইন্ডিজ।

অ্যান্টিগার স্যার ভিভ রিচার্ডস স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রতিপক্ষকে আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান স্বাগতিক দলের অধিনায়ক পোলার্ড। টস হারলেও নিজেদের ইনিংসের শুরুটা মন্দ হয়নি লঙ্কানদের। দুই ওপেনার দানুস্কা গুনাথিলাকা ও দিমুথ করুনারত্নের ব্যাটে উদ্বোধনি জুটিতে ৬৮ রান তোলে সফরকারীরা। গুনাথিলাকা ৩৬ ও করুনারত্নে ৩১ রানে আউট হওয়ার পর খানিক ছন্দ হারায় শ্রীলঙ্কা। পরে ১৫১ রান তুলতেই ৬ উইকেট হারিয়ে বসে তারা।

সপ্তম উইকেটে বান্দারা ও হাসারাঙ্গা দলকে ভালো পুঁজি পাইয়ে দেন। অপরাজিত ১২৩ রানের জুটি গড়েন তারা। এতে স্কোর বোর্ডে ২৭৪ রানের পুঁজি পায় শ্রীলঙ্কা। হাসারাঙ্গা ৬০ বলে ৭ চার ও ৩ ছক্কায় অপরাজিত ৮০ রান করেন, এবং ৭৪ বলে ৩ চার ও ১ ছক্কায় অপরাজিত ৫৫ রান করেন বান্দারা। বল হাতে আকিল হোসেইন ৩ উইকেট নেন।

আগের ম্যাচে ২৭৪ রান তাড়া করে ৫ উইকেটে জেতা উইন্ডিজ এ ম্যাচেও একই পথে হাঁটল। তাতে ম্যাচের চিত্রনাট্য পরিবর্তন না হলেও মূল ভূমিকায় খানিক বদল আসলো। আগের ম্যাচে দলের দায়িত্ব নিয়ে শতক হাকিয়েছিলেন এভিন লুইস। ১০৩ রান করেন তিনি। এ ম্যাচে লুইসের পরিবর্তে নাম ভূমিকায় ব্রাভো। ২৭৫ রান তাড়া করতে নেমে তার ব্যাট থেকে আসে ১০২ রান। এটি তার ক্যারিয়ারের চতুর্থ ওয়ানডে সেঞ্চুরি।

সঙ্গে শাই হোপের ৭২ বলে ৬৪ ও পোলার্ডের ৪২ বলে ৫৩ রানের ইনিংসের উপর ভর করে ৯ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখে ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়ে উইন্ডিজ। শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশের স্বাদ দেয় তারা। টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে সিরিজ শেষে এবার ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে মুখোমুখি হবে দুদল।