চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ১৩ বা ১৪ এপ্রিল রোজা

প্রকাশিত: মার্চ ১৪, ২০২১

দেশের আকাশে রোববার (১৪ মার্চ) পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে সোমবার (১৫ মার্চ) রজব মাসের ৩০ দিন পূর্ণ হচ্ছে। সে হিসেবে আগামী ২৯ মার্চ (সোমবার) দিবাগত রাতে পবিত্র শবে বরাত পালিত হবে।

শবে বরাতের দিন থেকে পরবর্তী ১৪-১৫ দিন পর শুরু হয় সিয়াম সাধনার মাস রমজান। হিসেব অনুযায়ী, শাওয়াল মাস ২৯ দিনে শেষ হলে রমজান শুরু হবে ১৩ এপ্রিল। আর ৩০ দিন পূর্ণ হলে ১৪ এপ্রিল থেকে রোজা রাখা শুরু করবেন দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা।

বিজ্ঞাপন

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন ঢাকা পোস্ট-কে বলেন, চাঁদ দেখার ওপর নির্ভর করছে রোজা। তবে আরবি মাস ৩০ দিনের বেশি না হওয়ায় ১৩ অথবা ১৪ এপ্রিল রমজান মাস শুরু হবে এটা নিশ্চিত করে বলা যায়।

এদিকে, ২৯ মার্চ শবে বরাত পালিত হবে বলে আজ জানিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন। সন্ধ্যায় বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. নূরুল ইসলাম।

শাবান মাসের ১৫তম রাতে (১৪ শাবান দিবাগত রাত) শবে বরাত পালিত হয়। সে হিসেবে আগামী ২৯ মার্চ (সোমবার) দিবাগত রাতই শবে বরাতের রাত। শবে বরাতের পর দিন বাংলাদেশে নির্বাহী আদেশে সরকারি ছুটি। এবার এ ছুটি পড়েছে ৩০ মার্চ (মঙ্গলবার)।

সভায় ধর্ম সচিব জানান, সব জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়, বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর, মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন কেন্দ্র থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, রোববার বাংলাদেশের আকাশে ১৪৪২ হিজরির শাবান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি।

ধর্মপ্রাণ মুসলিমদের কাছে ‘ভাগ্য রজনী’ হিসেবে পরিচিত লাইলাতুল বরাত। পুণ্যময় রাতটি বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের মুসলমানরা নফল নামাজ, কোরআন তেলাওয়াতসহ ইবাদত বন্দেগির মাধ্যমে কাটান।