আমার দলের সবাই তাহলে টিম প্লেয়ার

প্রকাশিত: মার্চ ১০, ২০২১

জাতীয় দল ঘোষণার পর প্রতিবারই ফুটবলাঙ্গনে আলোচনা-সমালোচনা চলে। এবারও দল নিয়ে চলছে নানা বিশ্লেষণ। প্রিমিয়ার লিগে কোচিং করাচ্ছেন দেশের তিন শীর্ষ কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক, সাইফুল বারী টিটু ও মারুফুল হক। তিন জনই জাতীয় দলের সাবেক কোচ। জেমি ডের ঘোষিত ২৪ দল নিয়ে সমালোচনার পরিবর্তে প্রশংসা করেছেন তারা।

শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের কোচ সাইফুল বারী টিটু জেমি ডের পরিষ্কার অবস্থানের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন, ‘জেমি সংবাদ সম্মেলনে দারুণভাবে তার অবস্থান ও লক্ষ্য ব্যাখ্যা করেছেন। বিষয়টি আমার দারুণ লেগেছে। সে এই টুর্নামেন্টের মাধ্যমে কয়েকজনকে দেখতে চান ও ভবিষ্যতের জন্য তৈরি করতে চান। এ রকম আমন্ত্রণমুলক টুর্নামেন্টেই এটার সর্বোত্তম ক্ষেত্র।’

সাইফুল বারী টিটুর দল শেখ রাসেল থেকে মাত্র ২ জন ডাক পেয়েছেন জাতীয় দলে। নিজ দলের মাত্র ২ জনকে জাতী দলে দেখা নিয়ে অবশ্য তেমন মন্তব্য করেননি, ‘আমি করোনা পজিটিভ ছিলাম এজন্য অনেক ম্যাচ মিস করেছি। জেমি অনেক ম্যাচ দেখেছেন। পজিশন, প্ল্যান সব কিছু মিলিয়ে সে সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

উয়েফা এ লাইসেন্সধারী কোচ মারুফুল হকের দল চট্টগ্রাম আবাহনী থেকে মাত্র ২ জন ডাক পেয়েছেন। জাতীয় দল ঘোষণা নিয়ে মারুফুল হকের অভিমত, ‘কোচ তার ধারণা ও লক্ষ্য ঠিক করেই দল ঘোষণা করেছেন। তার নিজস্ব ট্যাকটিস দিয়ে দল সাজাবেন। নেপালে দল কেমন খেলে এর ওপর নির্ভর করছে।’

শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব প্রিমিয়ার লিগে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে। জেমির দলে পয়েন্ট টেবিলের নিচের সারির দল মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, উত্তর বারিধারার ফুটবলার রয়েছেন। শেখ জামালের কেউ না থাকায় খানিকটা বিস্মিত শফিকুল ইসলাম মানিক, ‘
আমার দলের হয়তো সবাই টিম প্লেয়ার। এজন্য সম্ভবত ব্যক্তিগত কারো ওপর কোচের নজর পড়েনি।’

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ফিনল্যান্ডের ফুটবলার তারিক কাজী জাতীয় দলে ডাক না পাওয়ায় ফুটবলাঙ্গনে আলোচনা চলছে। তারিক কাজীর জাতীয় দলের ডাক পাওয়া প্রসঙ্গে জাতীয় দলের সাবেক কোচ মারুফুল হকের মন্তব্য, ‘কোচ সংবাদ সম্মেলনে ও আগেও বলেছেন লিগের পারফরম্যান্স দেখে দল গড়বেন। জাতীয় দলে আসতে হলে আগে ক্লাবের হয়ে খেলা প্রয়োজন।’

মারুফুল হকের সঙ্গে অনেকটা একমত জাতীয় দলের সাবেক কোচ সাইফুল বারী টিটু, ‘জেমি সবকিছু বিচার বিবেচনা করেই দল ডেকেছেন।’