এবার মাহফিল থেকে বক্তাকে অপমান করে পুলিশে দিলেন আলোচিত কাদের মির্জা

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২১

মাহফিলের স্টেইজ থেকে বক্তাকে অপমান করে বক্তাসহ দুজনকে পুলিশে দিয়েছেন নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভার আলোচিত মেয়র, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ভাই মির্জা কাদের।

অপমানিত হওয়া ও থানায় নেয়া ওই বক্তার নাম মাওলানা ইউনুস আহমেদ। বক্তাকে অপমান ও পুলিশে দেওয়ার বিষয়ে কাদের মির্জা ওই বক্তা মাহফিলে উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বড় রাজাপুর গ্রামের সিদ্দিকিয়া নূরানি মাদ্রাসার উদ্যোগে আয়োজিত ওয়াজ মাহফিলে বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) এ ঘটনা ঘটে।

এদিন রাত ৮টায় বক্তাসহ দুই জনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন আবদুল কাদের মির্জা। জানা যায় – ওই বক্তা এবং তার সাথে যাকে গ্রেফতার করা হয়েছে তারা একই এলাকার।

একজন হলেন কবিরহাট উপজেলার সাদুল্ল্যাপুর গ্রামের আমিন উল্যার ছেলে ধর্মীয় বক্তা মাওলানা ইউনুস আহমেদ (৩৭) এবং বসুরহাট পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের আবুল বাশারের ছেলে ইমরান হোসেন রাজু (২২) ।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহিদুল হক রনি বলেন, ‘ওয়াজ মাহফিলে উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ায় বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা নিজে বক্তাসহ দুই জনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল হাই বাদী হয়ে পাঁচ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন। আটককৃত দুই আসামিকে গ্রেফতার দেখিয়ে আগামীকাল বিচারিক আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হবে।’

তবে প্রত্যক্ষদর্শীর বরাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘটনার বিবরনে একজন ওই বক্তার উপর নির্যাতন ও তার গায়ে হাত দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন। একই সাথে স্টেইজেই বক্তা মাওলানা ইউনুসকে কিল ঘুষি দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে তবে এ দাবি এখনও যাচাই করা সম্ভব হয়নি।

প্রসঙ্গত : বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আলোচিত কাদের মির্জা বাংলাদেশের জাতীয় রাজনীতিতে ‘বেফাঁস মন্তব্য’ ও যাকে তাকে অপমান করে দেওয়া বক্তব্যের মাধ্যমে আলোচিত হয়েছেন। তিনি কখনও নিজ ভাই ওবায়দুল কাদের, কখনও স্থানীয় এমপি কখনও সরাসরি দলগতভাবে আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে সারাদেশে পরিচিতি পেয়েছেন। একই সাথে অভিযোগ আছে তিনি নোয়াখালীর রাজনীতিতে কোন গ্রুপের সিন্ডিকেট ভাঙতে নির্দিষ্ট কারো কাছ থেকে নিয়োগ পেয়েছেন। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সমস্যাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে কাদের মির্জার বেফাঁস মন্তব্য ও কড়া বক্তব্যকেও ব্যাবহার করা হয়েছে।

তবে এসব অভিযোগের মধ্যেও কাদের মির্জার বক্তব্যকে কোড করে বিএনপিসহ আওয়ামী বিরোধী অনেকেই রাজনৈতিক বক্তব্য দিয়েছেন। একই সাথে কিছুদিন আগে অনুষ্ঠিত হওয়া বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনে কাদের মির্জা বিপুল ভোটে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনে কাদের মির্জা পেয়েছেন ১০ হাজার ৭৩৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী কামাল উদ্দিন চৌধুরী পেয়েছেন ১ হাজার ৭৭৮ ভোট।

The post এবার মাহফিল থেকে বক্তাকে অপমান করে পুলিশে দিলেন আলোচিত কাদের মির্জা appeared first on পাবলিক ভয়েস.