সিংড়ায় ট্রাকসহ ছিনতাইকারী জনতার হাতে আটক

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২১, ২০২১

ঢাকা থেকে ছিনতাইকৃত একটি ট্রাকসহ আজাদুল ইসলাম (৪০) নামে এক ছিনতাইকারীকে আটক করে গণপিটুনী দিয়ে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী। এসময় ট্রাকের কেবিনে বেঁধে রাখা ট্রাক চালক রায়হানকে (২৫) উদ্ধার করা হয়।

বুধবার (২০ জানুয়ারী) বিকেলে নাটোরের সিংড়া উপজেলার চামারী ইউনিয়নের সোনাপুর এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত সেতুর পাশে থেকে ট্রাকসহ ছিনতাইকারীকে আটক করে এলাকাবাসী।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আহত অবস্থায় অভিযুক্ত ছিনতাইকারী আজাদুল ইসলামকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে নিয়ে যায়। অভিযুক্ত ছিনতাইকারী আজাদুল ইসলাম নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার সাবগাড়ি এলাকার আব্দুস সামাদের ছেলে। অপরদিকে ট্রাকের কেবিন থেকে হাত-মুখ বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার ট্রাক চালক রায়হান বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার ভাজখালি গ্রামের মৃত আফজাল হোসেনের ছেলে।

সিংড়া থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, ট্রাক চালক রায়হান চট্টগ্রাম থেকে বগুড়া শহরের আরিফ ট্রেডার্স-এর মালামাল নিয়ে বগুড়ায় দিকে যাচ্ছিলেন। ট্রাকটি ঢাকা ছেড়ে চন্দ্রামোড় আসার পর যাত্রীবেশী ৬ জন ডাকাত নাটোরে আসার কথা বলে ট্রাকে ওঠেন। পথে তারা ট্রাকটি থামিয়ে ট্রাকের নিয়ন্ত্রণ নেয় এবং চালক রায়হানকে বেঁধে ট্রাকের কেবিনের নিচে ফেলে রাখে।

ছিনতাইকারীরা ট্রাকটি নিয়ে গুরুদাসপুর হয়ে গ্রামীণ সড়ক দিয়ে সিংড়া উপজেলার বিলদহর এলাকায় ট্রাকটি নিয়ে আসে। এসময় ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি ঘরের ওপর উঠে পড়ে। এলাকাবাসী ট্রাকটি থামিয়ে ওই বাড়ির মালিককে ক্ষতিপূরণ দেয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে। অবস্থা বেগতিক দেখে ট্রাকের ভেতরে থাকা পাঁচ ডাকাত কৌশলে পালিয়ে যায়। অপরজন পালানোর চেষ্টা করলে ডাকাতদলের সদস্য আজাদুলকে এলাকাবাসী ধরে গণপিটুনী দেয়ার সময় ট্রাকের কেবিনের ভিতরে চালককে বাঁধা অবস্থায় দেখতে পায়।

এলাকাবাসী চালককে উদ্ধার করে তার হাত-পা ও মুখের বাঁধন খুলে দিলে চালক ট্রাকটি ছিনতাই হওয়াসহ পুরো ঘটনা বর্ণনা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ এসে অভিযুক্ত ছিনতাইকারী আজাদুলকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। ট্রাকের চালক রায়হানকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। এ ঘটনায় ৬ জনকে আসামি করে বুধবার রাতেই সিংড়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়।