আ’লীগের উপ কমিটিতে ঘাটাইলের উর্মিলা শ্রাবন্তী কর

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২১, ২০২১
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় মহিলা বিষয়ক উপকমিটির সদস্য হলেন অভিনেত্রী উর্মিলা শ্রাবন্তী কর। গত রবিবার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ৫০ সদস্যের উপকমিটি অনুমোদন দেন।
ঊর্মিলা টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার কৃতি সন্তান প্রয়াত অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল অনন্ত করের মেয়ে। তার মাতার নাম তৃপ্তী কর। দুইবোন এক ভাইয়ের মধ্যে তিনি সবার ছোট। তিনি মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পাশ করেছেন চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ থেকে। পরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিষয়ে স্নাতক সম্পূর্ণ করেন।
উর্মিলা ছোটবেলা থেকেই গান শিখেছেন। রবীন্দ্রসংগীতের ওপর ছায়ানট থেকে ডিপ্লোমা করেছেন।
উর্মিলা শ্রাবন্তী কর আওয়ামী লীগের সাবেক অভ্যর্থনা উপকমিটি, ৭ম জাতীয় কংগ্রেস-২০১৯-এর সদস্য। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী থাকাকালীন রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন উর্মিলা। উচ্চ মাধ্যমিকের গণ্ডি টপকানোর সঙ্গে সঙ্গে রাজনীতিতে সক্রিয় কর্মী হয়ে ওঠেন।
তিনি বলেন, রাজনীতিতে জড়িত এগার বছর ধরে। সংগঠনের জন্য অনেক কিছু করেছি। সবসময় সক্রিয় ছিলাম। প্রিয় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাওয়াটা আমার কাছে ভাগ্যের ব্যাপার।
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় কমিটির মহিলা সম্পাদিকা ছিলেন লাক্সতারকা উর্মিলা। তিন বছর কমিটির ওই পদে থেকে নানামাত্রিক রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়িয়েছিলেন তিনি।
বললেন, সবসময় ন্যায় নীতির রাজনীতি করেছি। ভালোর সঙ্গে থেকেছি। মানুষের ক্ষতি হয় এমন রাজনীতি কখনই করিনি। ভবিষ্যতেও করবো না।
উর্মিলা শ্রাবন্তী কর বলেন, ‘পারিবারিকভাবেই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে আছি। ছাত্র বয়সেও রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলাম। মহিলা বিষয়ক উপকমিটিতে সদস্য হওয়া আমার জন্য অবশ্যই আনন্দের। আশা করি নিজের দায়িত্ব যথাযথ পালন করতে পারবো।
উর্মিলার রাজনীতিতে আসাটা তিনি প্রভাবিত হয়েছেন নিজ পরিবার থেকে। বললেন, আমার পরিবার মুক্তিযোদ্ধা পরিবার। দাদা শহীদ হয়েছিলেন। পরিবারের বেশিরভাগ মানুষ মুক্তিযুদ্ধের সঙ্গে জড়িত। যুদ্ধের বছর আমাদের গ্রামের ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেয়া হয়েছিল। ছোট থেকেই দেখে এসেছি পরিবার স্বাধীনতার পক্ষে ছিল। আমার পরিবারে সবসময় রাজনৈতিক পরিবেশ বিরাজ করতো, সবসময় এসব নিয়ে আলোচনা হতো।
ঊর্মিলা তার কর্মজীবন শুরু করেন ছোট পর্দার মাধ্যমে। টিভি নাটকে ব্যস্ত শিল্পীদের মধ্যে অন্যতম একজন ঊর্মিলা। ২০১০ সালে তাহের শিপনের নির্দেশনায় জটিল প্রেম নামের একটি নাটকে প্রথম অভিনয় করেন। তিনি বিজ্ঞাপনে মডেলিং করেছেন। সিটিসেল জুম আলট্রা, ডানো, মেরিল বেবি লোশন, বাংলা লায়ন ওয়াইম্যাক্সসহ একাধিক বিজ্ঞাপনে মডেল হয়েছেন।
ঊর্মিলা জয়দেব সিনহা রায় নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তাকে বিয়ে করেন। ২০১৪ সালের ১৭ অক্টোবর তাদের আশীর্বাদ হয়, তারপরে ২০১৫ সালের এপ্রিল এ তাদের বিয়ে হয়।